শীতের ভাপা পিঠা

প্রকৃতিতে শীত চলে এসেছে। শহরে তেমন শীত না লাগলেও, গ্রামে গাছপালার মাঝে শীতটা ঠিকই ঝেঁকে বসতে শুরু করেছে। শীতকালে অন্যান্য খাবারের চাইতে পিঠা খাওয়ার ধুম পড়ে যায় চারদিকে। নবান্নের আমেজও থাকে। আর এই ধুমটা যদি হয় শীতের ভাপা পিঠা খাওয়ার তাহলে তো কোন কথায় নেই।

শীতের ভাপা পিঠা

শীতের ভাপা পিঠা

উপকরণঃ

  • চালের গুঁড়া – ১ কেজি
  • নারিকেল – ১ টা (কোরানো)
  • গুঁড় কুচানো – ২৫০ গ্রাম
  • লবণ – পরিমাণমতো
  • পানি – পরিমাণমতো

অন্যান্য উপকরণঃ

  • ২ টুকরা সাদা পাতলা নরম কাপড়ের টুকরা
  • ছোট্ট ঢাকনা
  • পিঠা বানানোর জন্য ছোট, গোল বাটি
  • পিঠা ভাপানোর জন্য ঢাকনা সহ বিশেষ পাত্র অথবা ভাপা পিঠার মাটির হাড়ি
  • বাঁশের চালনি

প্রস্তুত প্রণালীঃ

পিঠা প্রস্ততঃ

১. একটি পাত্রে চালের গুঁড়া, লবণ ও অল্প অল্প পানি দিয়ে ঝরঝরে করে ভাল ভাবে মাখাতে হবে যেন দলা পাকিয়ে না যায়, খেয়াল রাখবেন ঝরঝরে হতে হবে।

২. এবার এই চালের গুঁড়া বাশের চালনিতে হাত দিয়ে ঘষে ঘষে চালতে হবে। ঝরঝরে মোটা সুজির দানার মত বের হবে।

৩. কোরানো নারিকেলের অর্ধেকটা চেলে নেয়া চালের গুঁড়ার সাথে মাখাতে হবে এবং বাকি অর্ধেকটা কুচানো গুঁড়ের সাথে মেখে রাখতে হবে।

৪. এবার হাড়ির অর্ধেকটা পানিতে ভরে জ্বাল দিয়ে পানি ফুটে ভাপ ওঠা পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে। ভাপা পিঠার জন্য বাজারে বিশেষ একধরনের হাড়ি পাওয়া যায়, সেটিও ব্যবহার করতে পারেন। এই হাড়িটির ঢাকনার ঠিক মাঝখানে একটা ফুটো থাকে, হাড়ি কিনারায় বাতাস চলাচল আটকে দেয়া হয় তাই ভাপটা শুধু এই ফুটো দিয়েই বের হয়।

৫. এখন পিঠার জন্য ছোট বাটিতে (মাটির বা স্টীলের বাটি) একফোটা তেল মেখে কিছু মাখানো চালের গুঁড়া দিয়ে তার উপর গুঁড় ছড়িয়ে দিতে হবে এবং এর উপর আবার চালের গুঁড়া দিয়ে ঢেকে দিতে হবে। আলতো হাতে চেপে চেপে সমান (লেভেল করে) করে ভাপা পিঠার আকার তৈরি করে নিতে হবে। বেশি পাতলা বা বেশি মোটা স্তর যেন না হয়, সে দিকে লক্ষ্য রাখতে হবে।

পিঠা ভাপানোঃ

৬. এবার বাটিটা ভেজা পাতলা কাপড় দিয়ে ঢেকে গরম পানির হাড়ির উপর উপুড় করে বসিয়ে দিতে হবে। এবার বাটিটা আস্তে করে সরিয়ে নিতে হবে, খেয়াল করতে হবে যেন পিঠা ভেঙ্গে না যায়।

৭. কাপড়ের প্রান্ত গুলি মুড়ে এক জায়গায় করে বড় ঢাকনা দিয়ে ঢেকে দিতে হবে, যাতে ভাপটা পিঠার গায়ে লাগে। ৫/৭ মিনিট ভাপে সেদ্ধ হলে ঢাকনা সরিয়ে আঙ্গুল দিয়ে চেপে দেখতে হবে নরম হয়েছে কি না। নরম হলে বুঝতে হবে পিঠা পরিবেশনের জন্য রেডি।

পাতিলের উপর থেকে নামিয়ে নিয়ে গরম গরম শীতের ভাপা পিঠা পরিবেশন করুন।

ভূলু, চট্টগ্রাম, ১৫/১২/২০০৮

happy wheels

About ভূলু | ভূলু'স রেসিপি

আমি 'ফজলুর নূর ভূলু'। আমার রান্নাঘরের অরিজিনাল সব রেসিপি নিয়েই আমার এই ব্লগ - "ভূলু'স রেসিপি"। এই রেসিপি ব্লগের মাধ্যমে আমি দেশি খাবার আর তার অতুলনীয় স্বাদের বৈচিত্র তুলে ধরতে চাই। সাথে আমাদের আঞ্চলিক এবং ঐতিহ্যবাহী রান্নাগুলোও থাকবে। ভবিষ্যতে এইসব রেসিপি আর ব্লগের গল্পগাঁথা নিয়ে একটি বই প্রকাশের ইচ্ছে আছে।